1. bd35be9017d4c9453cd35cbbf143797e : admi2017 :
  2. editor@ajkergopalganj.com : Ajker Gopalganj : Ajker Gopalganj
মঙ্গলবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৩:৫৪ পূর্বাহ্ন

বঙ্গবন্ধুর জীবন ঘনিষ্ট ও শিল্প নির্ভর ‘এক তর্জণীর নির্দেশ’ নাটক মঞ্চস্থ

শেখ জাবেরুল ইসলাম(বাঁধন)
  • আপডেট টাইম : সোমবার, ১ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ১৪৮ বার পঠিত

আজকের গোপালগঞ্জ প্রতিবেদক

গোপালগঞ্জে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবন ও কর্ম নিয়ে রচিত ‘এক তর্জণীর নির্দেশ’ নাটক মঞ্চস্থ হয়েছে। রোববার রাতে গোপালগঞ্জ শেখ ফজলুল হক মণি অডিটোরিয়ামে জেলা শিল্পকলা একাডেমির শিল্পীরা এ নাটক মঞ্চায়ন করেন। বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির প্রতিনিধি ও রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের নাট্যকলা বিভাগের শিক্ষক মীর মেহবুব আলম নাহিদ, মুক্তিযোদ্ধা ও সুধীজন এ নাটক উপভোগ করেন। বাঙ্গালীর মুক্তির সনদ ৬ দফা, ৭০ এর সাধারণ নির্বাচন ও ৭১ এর ৭ ই মার্চের রেসকোর্স ময়দানে বঙ্গবন্ধুর ভাষনের প্রেক্ষাপটে এ নাটক রচনা করা হয়েছে। নাটকের শুরুতে বঙ্গবন্ধুর ৬ দফার পক্ষে জনমত গঠন করেন আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ। বাঙ্গালীর অধিকার প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে ৭০ এর নির্বাচনে নৌকায় ভোট চান মুক্তিকামী মানুষ। নির্বাচনে নিরংকুশ বিজয়ের পর পাকিস্তানী শাসকগোষ্ঠি বঙ্গবন্ধুর কাছে ক্ষমতা হস্তান্তরের পরিবর্তে ষড়যন্ত্র শুরু করে। ছাত্র জনতা বঙ্গবন্ধুর সাহসী নেতৃত্বে শাসক গোষ্ঠিকে দাঁতভাঙ্গা জবাব দিতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে স্বাধীন বাংলার পতাকা উত্তোলন করেন। বঙ্গবন্ধুর উপস্থিতিতে পরিবেশন করা হয় জাতীয় সংগীত। ছাত্র জনতার আন্দোলনে শাসকগোষ্ঠির গুলি বর্ষণে দু’ বীর বাঙ্গালী শহীদ হন। এতে আন্দোলন তীব্র আকার ধারণ করেন। পাকিস্তানের প্রেসিডেন্ট জাতীর উদ্দেশ্যে ভাষনে জাতীয় পরিষদের অধিবেশন অনিদ্দিষ্ট কালের জন্য স্থগিত করে ঢাকায় ১৪৪ ধারা জারি করেন। সে দিন ঢাকায় বাঙ্গালীদের প্রতিবাদের আগুন জ্বলে ওঠে। দেশে গভীর সংকট শুরু হয়। বাঙ্গালীকে সঠিক দিশা দেখাতে ৭ মার্চ রেসকোর্সে জনসভার আয়োজন করা হয়। এ সংকট উত্তরণে ৬ মার্চ আওয়ামী লীগের সংসদীয় কমিটি জরুরী সভায় বসেন। গভীর রাত পর্যন্ত সভা চলে। রেসকোর্স ময়দানে স্বাধীনতার ঘোষনা দিলে শাসকগোষ্ঠি গুলি ও বোমা বর্ষণ করবে বলে হুশিয়ারী উচ্চারণ করে। তাই কোন সিদ্ধান্ত ছাড়াই আওয়ামী লীগের সংসদীয় দলের মিটিং শেষ হয়। বঙ্গবন্ধু ধানমন্ডির ৩২ নম্বরে ফিরে এসে গভীর চিন্তমগ্ন হয়ে ওঠেন। শেষ রাতের দিকে বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব তাকে সাহস যোগান। বলেন, ৭ই মার্চ রেসকোর্স ময়দানে তোমার সামনে জনতা, আর পেছনে থাকবে শাসকের গুলি। এ অবস্থায় বাঙ্গালীর মনের কথা যা,তোমার মনে আসবে সেটাই তুমি বলবে। তারপর বঙ্গমাতার আহবানে সাড়া দিয়ে তারা ঘুমাতে যান। পরে দিন বঙ্গবন্ধু রেসকোর্স ময়দানে লাখো বাঙ্গালীর সামনে ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষন দেন। বক্তৃতা মঞ্চে দাড়িয়ে এক তর্জণী উচিয়ে বঙ্গবন্ধু বজ্র-কন্ঠে কোটি কোটি বাঙ্গালীকে মুক্তি ও স্বাধীনতার সংগ্রামে ঝাঁপিয়ে পড়ার নির্দেশ দেন। ৭ই মার্চে বঙ্গবন্ধুর যুগোপযোগি নির্দেশ পেয়ে বাঙ্গালীরা স্বাধীনতা সংগ্রামের ঝাঁপিয়ে পড়েন । দীর্ঘ ৯ মাস লড়াই সংগ্রাম শেষে বীর বাঙ্গালী ৭১ এর ১৬ই ডিসেম্বর বিজয় ছিনিয়ে আনে। নাটকরে রচয়িতা সরকারী বঙ্গবন্ধু কলেজের বাংলা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মঈন আহমেদ বলেন, জাতীর গভীর সংকটে এক ভীতিকর অবস্থায় ৭ই মার্চে সাহসী ভাষন দেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। এ ভাষনে তিনি মুক্তিযুদ্ধ সহ দেশকে স্বাধীন করার সব ধরণের নির্দেশনা দেন। মহান এ নেতার এক তর্জণীর নির্দেশেই বাংলাদেশ স্বাধীন হয়েছে। নাটকের নির্দেশক হাবিব তাড়াশীর নির্দেশনায় নাটকটি সাবলীলভাবে মঞ্চায়ন করা হয়েছে। জেলা কালচারাল অফিসার আল মামুন বিন সালেহ বলেন, বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি দেশের ৬৪ টি জেলায় বঙ্গবন্ধুর জীবন ও কর্ম নিয়ে শিল্প নির্ভর ৬৪ টি নাটক মঞ্চায়নের উদ্যোগ নিয়েছে। এ কর্মসূচীর অংশ হিসেবে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নিজ জেলা গর্বিত গোপালগঞ্জে এক তর্জণীর নির্দেশ নাটক মঞ্চায়ন করা হয়েছে। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের নাট্যকলা বিভাগের শিক্ষক মীর মেহবুব আলম নাহিদ বলেন, এ নাটকটি বঙ্গবন্ধুর জীবন ঘনিষ্ট ও শিল্প নির্ভর। নাটকের প্রেক্ষাপট, সংলাপ খুবই মান সম্পন্ন। এখানে শিল্প নির্ভরতাও রয়েছে। বারবার মঞ্চায়ণের মাধ্যমে আরো সুন্দর ভাবে নাটকটি মঞ্চায়ন করা সম্ভব হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..
আজকের গোপালগঞ্জ বিল্ড ফর নেশনের একটি উদ্যোগ
Theme Developed BY ThemesBazar.Com