1. bd35be9017d4c9453cd35cbbf143797e : admi2017 :
  2. editor@ajkergopalganj.com : Ajker Gopalganj : Ajker Gopalganj
শনিবার, ২২ জানুয়ারী ২০২২, ১২:৩৮ অপরাহ্ন

গোপালগঞ্জে ফেসবুকের ভাইরাল ভিডিও পোস্টটি সত্য নয়

শেখ জাবেরুল ইসলাম(বাঁধন)
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ২ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ৩০৯ বার পঠিত

আজকের গোপালগঞ্জ প্রতিবেদক
ইউনিয়ন পরিষদের কোন সাহায্য না পেয়ে দুই জমজ শিশুকে আলু খাইয়ে বাঁচিয়ে রাখা হয়েছে। এমন শিরোনামে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। ভাইরাল ভিডিও পোস্টটি সত্য নয়।
তাই এ ভিডিওটি নিয়ে গোপালগঞ্জের কাশিয়ানী উপজেলাজুড়ে সাধারণ মানুষের মাধ্যে ব্যাপক তোলপাড় ও ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।
স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করতে একটি মহল সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে গত ২৮ জানুয়ারী এ ধরণের ভিডিও ক্লিপ ছেড়ে ভাইরাল করেছে বলে স্থানীয়রা অভিযোগ করেন।
ভিডিও ক্লিপটিতে ইউনিয়ন পরিষদের কোন সাহায্য না পেয়ে দুধের দুই জমজ শিশুকে আলু খাইয়ে বাঁচিয়ে রেখেছেন অসহায় এক মা। ঘটনাটি গোপালগঞ্জ জেলার কাশিয়ানী উপজেলার সিংগা ইউনিয়নের সিঙ্গা গ্রামের। এছাড়া ভিডিও ক্লিপটিতে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান প্রণব সরকার ও ইউপি সদস্য প্রভাষ রায়ের কর্মকান্ড নিয়ে আপত্তিকর মন্তব্য করা হয়েছে।
শিশু দুটির মা পপি রায় সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, ইউনিয়ন পরিষদ থেকে তাদেরকে ১০ টাকা মূল্যের খাদ্যবান্ধব কর্মসূচীর একটি কার্ড ও একটি প্রতিবন্ধী ভাতা কার্ড করে দেয়া হয়েছে। এছাড়া এলাকাবাসী তার দু’শিশুর খাদ্য সহায়তা হিসেবে অন্তত ৫০ কৌটা গুড়া দুধ কিনে দিয়েছেন। পুষ্টি চাহিদা মেটাতে ভাতের পাশাপাশি শিশু দুটিকে আলু খাওয়ানো হয় বলে তিনি জানান। তবে “খাবারের অভাবে শুধু আলু খাইয়ে বাঁচিয়ে রাখা হয়েছে” এমন কথা সত্য নয় বলে জানান ওই শিশুর মা।
সিংগা ইউপি চেয়ারম্যান প্রণব সরকার ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, আমি আ’লীগ মনোনীত বিজয়ী ইউপি চেয়ারম্যান। আওয়ামী বিরোধী কিছু লোক আমার এবং আওয়ামী লীগ সরকারের সাফল্যে ঈষান্বিত হয়ে এ ধরণের অপপ্রচার করে ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করার চেষ্টা করছে।
পাশ্ববর্তী হাতিয়াড়া ইউপি চেয়ারম্যান দেবদুলাল বিশ্বাস বলেন, ফেসবুকে যে ভিডিওটি ভাইরাল হয়েছে এটা সম্পূর্ণ মিথ্যা ও ভিত্তিহীন। যা স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও আওয়ামী লীগ সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করার চেষ্টা মাত্র।
কাশিয়ানী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা মো. মোক্তার হোসেন বলেন, খাদ্যভাবে দুই শিশুকে আলু খাইয়ে বাঁচিয়ে রাখা হয়েছে। ফেসবুকে ভিডিও ছেড়ে শুধু গুজব রটানো হয়েছে। আসলে এর কোন সত্যতা নেই। আওয়ামী লীগ সরকারের আমলে বাংলাদেশের কোথাও এমন ইতিহাস নেই, যে খাদ্যাভাবে মানুষ আলু খেয়ে বেঁচে আছে। সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করার অভিপ্রায়ে অপপ্রচার ও বিভ্রান্তি ছড়ানো হচ্ছে। এতে সরকার ও জনগণের মধ্যে বিভ্রান্তি সৃষ্টি হচ্ছে। আমি আইন শৃংখলা বাহিনীকে অনুরোধ করবো এ বিষয়ে তদন্ত করে দোষীদের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য আইন শৃংখলা বাহিনীকে অনুরোধ করছি।
কাশিয়ানী থানার ওসি মোঃ আজিজুর রহমান বলেন, এ ব্যাপারে কেউ অভিযোগ করলে আমরা বিষয়টি তদন্ত করে দেখবো।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..
আজকের গোপালগঞ্জ বিল্ড ফর নেশনের একটি উদ্যোগ
Theme Developed BY ThemesBazar.Com