1. bd35be9017d4c9453cd35cbbf143797e : admi2017 :
  2. editor@ajkergopalganj.com : Ajker Gopalganj : Ajker Gopalganj
বুধবার, ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৪:১১ পূর্বাহ্ন

টুঙ্গিপাড়ায় মশাল প্রজ্জ্বলন করে বঙ্গবন্ধু ৯ম বাংলাদেশ গেমস্ এর আনুষ্ঠানিকতা শুরু

শেখ জাবেরুল ইসলাম (বাধন)
  • আপডেট টাইম : বুধবার, ৩১ মার্চ, ২০২১
  • ১৭৮ বার পঠিত

আজকের গোপালগঞ্জ প্রতিবেদক
বাংলাদেশের ইতিহাসে এই প্রথম জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মস্থান গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় বড় ক্রীড়া আসরের মশাল প্রজ্জ্বলন করে আনুষ্ঠানিকতা শুরু করা হয়েছে।
বুধবার সকাল ১১টায় টুঙ্গিপাড়া হেলিপ্যাডে বঙ্গবন্ধু নবম বাংলাদেশ গেমসের মশাল প্রজ্জ্বলিন করেন বাংলাদেশ অলিম্পিক এসোসিয়েশনের সভাপতি ও সেনা প্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ। তারপর তিনি বেলুন উড়িয়ে বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দালের সাবেক অধিনায়ক ইলিয়াস হোসেন ও সাবেক ভলিবল তারকা জেসমিন খান পপির হাতে মশাল তুলে দেন। তারা মশাল নিয়ে গাড়ি যোগে টুঙ্গিপাড়া থেকে ঢাকার উদ্দেশ্য যাত্রা শুরু করেন। এরপর বিভিন্ন স্থানে ১০ ভাগে ভাগ হয়ে মশাল বহন করবেন ২০ জন সাবেক তারকা খেলোয়াড়। মশালটি টুঙ্গিপাড়া থেকে প্রথমে বাংলাদেশ অলিম্পিক এসোসিয়েশনের কার্যালয়ে যাবে। পরে মশালটি গেমসের প্রধান ভেন্যু বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে নেয়া হবে। এ মশাল বহনে অংশীদার হতে পেরে আনন্দিত সাবেক তারকা খেলোয়াড়রা।
এরআগে সেনা প্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ টুঙ্গিপাড়া পৌঁছে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধিসৌধে পুস্পস্তবক অর্পন ফাতেহাপাঠ ও দোয়া-মোনাজাত করে তাঁর স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানান।

সাবেক খেলোয়াড় ফারহাদ জেসমিন লিটি বলেন, ৯ম বাংলাদেশ গেমস উপলক্ষে আমরা মশাল প্রজ্জ্বলন টিমের সদস্য হয়েছি । এ জন্য নিজেকে সৌভাগ্যবান মনে করছি। ইতিহাসের সাক্ষী হয়ে আমরা থাকতে পারবো। ২০ জন কৃতি খেলোয়াড়ের মধ্যে থেকে আমাকে নির্বাচিত করায় আমি বাংলাদেশ অলিম্পিক এসোসিয়েশনকে অসংখ্য ধন্যবাদ জানাই। আমি নবম বাংলাদেশ গেমসের উত্তরোত্তর সাফল্য কামনা করছি।

অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশনের কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য ও বঙ্গবন্ধু নবম বাংলাদেশ গেমসের মশাল প্রজ্জ্বলন অনুষ্ঠানের কো-অর্ডিনেটর এমবি সাইফ বি মোল্লা বলেন, জাতির জনকের জন্মশত বার্ষিকী উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু ৯ম বাংলাদেশ গেমসে আমাদের যে, প্রোগ্রামটি ছিলো করোনা মহামারির কারনে আমরা তা করতে পারিনি। এ কারণে বঙ্গবন্ধু ৯ম বাংলাদেশ গেমস ২০২০ নামে নামেই করা হচ্ছে। যেহেতু জাতির জনকের নামে এই গেমসটি উৎসর্গ করা হয়েছে সেহেতু জাতির পিতার পূন্যভূমি টুঙ্গিপাড়া থেকে বাংলাদেশের ইতিহাসে প্রথম কোন অলিম্পিকের বড় ধরনের গেমস মশাল প্রজ্জ্বলনের আনুষ্ঠানিকতা টুঙ্গিপাড়া বঙ্গবন্ধু সমাধি সৌধ সংলগ্ন থেকে করা হলো। এছাড়া গেমস্টিকে উৎসবমূখর করতে সকল ধরনের প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে।

বঙ্গবন্ধু ৯ম বাংলাদেশ গেমস সাংগঠনিক কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ শাহেদ রেজা বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর স্মৃতিধন্য টুঙ্গিপাড়া থেকে গেমসটি শুরু হচ্ছে এটা জীবনের সবচেয়ে বড় অনুভূতি। জাতির পিতার জন্ম স্থান থেকে মশাল প্রজ্জ্বলিত করে আমরা অনুষ্ঠানটি শুরু করতে পেরেছি এটাই আমাদের বড় পাওয়া। এছাড়া গেমসটি জাতির জনকের নামে উৎসর্গ করেছি।

তিনি আরো বলেন, আমাদের আগে যে পরিকল্পনা ছিল সেটাই আছে। আমরা স্বাস্থ্য বিধি মেনেই আনুষ্ঠানিকতা শুরু করেছি ও সচিবালয়, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ও যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের সাথে আমাদের যোগাযোগ আছে। তারা যে নির্দেশনা দিচ্ছে সে অনুযায়ী কাজ হচ্ছে। আমরা আশাবাদী গেমসটি সুন্দরভাবে সম্পন্ন হবে। করোনা শুধু বাংলাদেশই নয় সারা বিশ্বব্যাপী একটি সমস্যা। করোনার কারনে শুধু বাংলাদেশের খেলাধুলা না জাপান, টোকিও অলিম্পিক গেমস ও পিছিয়ে গেছে। তাই করোনা মহামারীর কারণে আক্ষেপের কিছু নেই। যখন যে রকম পরিস্থিতি হয় সেভাবেই মোকাবেলা করতে হয়।
বঙ্গবন্ধু নবম বাংলাদেশ গেমসে দেশের সাতটি জেলার ২৯টি ভেন্যুর এই ক্রীড়াযজ্ঞে ৩১ ইভেন্টে ৫ হাজার ৩’শ ক্রীড়াবিদ ১ হাজার ২৭১টি পদকের জন্য লড়বেন। এর মধ্যে সোনা ও রৌপ্য পদক রয়েছে ৩৭৮টি। তবে করোনার মহামারির প্রকোপ মাথার রেখে খোলোয়াড়দের কোভিড টেষ্টসহ নানা পরিকল্পা নেয়া হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..
আজকের গোপালগঞ্জ বিল্ড ফর নেশনের একটি উদ্যোগ
Theme Developed BY ThemesBazar.Com