1. bd35be9017d4c9453cd35cbbf143797e : admi2017 :
  2. editor@ajkergopalganj.com : Ajker Gopalganj : Ajker Gopalganj
মঙ্গলবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২:৩৬ পূর্বাহ্ন

গোপালগঞ্জে ৪ ডাকাত গ্রেফতার

শেখ জাবেরুল ইসলাম (বাঁধন)
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ১ এপ্রিল, ২০২১
  • ৪৪৪৭ বার পঠিত

আজকের গোপালগঞ্জ প্রতিবেদক

ডিবি পুলিশ পরিচয়ে মহাসড়কে ডাকাতিকালে ডাকাত চক্রের ৪ সদস্যকে গ্রেফতার করেছে গোপালগঞ্জ থানা পুলিশ। চক্রটি ডিবি পুলিশ পরিচয় দিয়ে মহাসড়ক থেকে সাধারণ মানুষকে মাইক্রোতে তুলে মারপিট করে মূল্যবান জিনিসিপত্র ছিনিয়ে নিতো। পরে মহাসড়কের  সুবিধাজনক স্থানে ক্ষতিগ্রস্থ ব্যক্তিকে ফেলে পালিয়ে যেত। তারা এভাবেই দিনের পর দিন অসংখ্য ডাকাতি করেছে বলে পুলিশের কাছে স্বীকার করেছে।

বুধবার দিবাগত রাত ১২ টা ৫০ মিনিটে গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার হরিদাসপুর ব্রিজ থেকে পুলিশ তাদের গ্রেফতার করে। এ ব্যাপারে গোপালগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। গ্রেফতারকৃতরা হলো বরগুনা জেলার তালতলী থানার বেতিপাড়া গ্রামের কাদের প্যাদার ছেলে একিন ওরফে সুমন প্যাদা (২৮), বরগুনা জেলার আগাপদ্মা এলাকার দক্ষিণ ডিকেপি রোডের ওয়াজেদ খানের ছেলে জাহাঙ্গীর খান (৪৫) , বরগুনা জেলার তালতলী উপজেলার ঠংপাড়া গ্রামের দেনছের আলী হাওলাদারের ছেলে নূর মোহাম্মদ (২৮) ও  বরগুনা জেলার শিয়ালিয়া গ্রামের মৃত নুরুল ইসলাম সিকদারের ছেলে মোঃ সেলিম (৩৫)।

ক্ষতিগ্রস্থ গোপালগঞ্জ শহরের ডায়াগনস্টিক ব্যবসায়ী মোঃ এনামুল হক মুনির বলেন, বুধবার আমি আমার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে রাত ১১টা ৪৫ মিনিটে মোটর সাইকেলে করে গ্রামেরবাড়ি পাথালিয়ার উদ্দেশ্যে রওনা হই। রাত ১২ টা ৫ মিনিটে সোনাকুড় সংযোগ সড়কে পৌছালে একটি মাইক্রোবাস আমার মোটর সাইকেলের সামনে এসে দাড়ায়। ড্রাইভার সহ ৭/৮ জন গাড়ি থকে নেমে  নিজেদের ডিবি পুলিশ পরিচয় দিয়ে আমাকে মাইক্রোতে তোলো। তাদের মধ্যে একজন আমার মোটর সাইকেল চালিয়ে নিয়ে যায়। পরে তারা আমাকে মারপিট করে আমার নগদ ৩০ হাজার ৭ শ’ ২০ টাকা,২টি মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নেয়। পরে আমাকে গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার তুতবাটি নামকস্থানে ফেলে পালিয়ে যায়। পরে আমি বিষয়টি গোপালগঞ্জ সদর থানা পুলিশকে জানাই।

গোপালগঞ্জ সদর থানার এসআই মিজানুর রহমান বলেন, খবর পেয়ে আমরা অভিযান শুরু করি। সদর উপজেলার গোপিনাথপুরে পুলিশের ব্যারিকেটের মুখে ডাকাত দলের সদস্যরা মাইক্রো ঘুরিয়ে খুলনার দিকে রওনা হয়। এ সময় ডাকাত চক্রের অন্য সদস্যরা পালিয়ে যায়।  হরিদাসপুর ব্রিজের ওপর ব্যারিকেট দিয়ে  ডাকাত চক্রের ৪ জনকে আটক করা হয়। এ সময়  তাদের কাছ থেকে একটি রামদা,  ২টি ধারলো চাকু, একটি হাতুড়ি, একটি টিপ গিয়ার চাকু, ডাকাতির মালামাল, ৬টি মোবাইল ফোন, নগদ টাকা ও ডাকাতির কাজে ব্যবহৃত একটি নোয়া মাইক্রোবাস উদ্ধার করা হয়। এ ব্যাপারে গোপালগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

ওই পুলিশ কর্মকর্তা আরো জানান, চক্রটি দীর্ঘদিন ধরে মহাসড়কে নিজেদের ডিবি পুলিশ পরিচয় দিয়ে সাধারণ মানুষকে মাইক্রোতে তুলে মারপিট করত। তারপর তাদের কাছ থেকে নগদ টাকা, মোটর সাইকেল, স্বর্নালংকার সহ মূল্যবান জিনিসপত্র ছিনিয়ে নিয়ে সড়কের পাশে ফেলে রেখে পালিয়ে যেত বলে জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকার করেছে। দেশের বিভিন্ন মহাসড়কে তারা এ কাজ করে বেড়াত বলেও পুলিশকে জানিয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..
আজকের গোপালগঞ্জ বিল্ড ফর নেশনের একটি উদ্যোগ
Theme Developed BY ThemesBazar.Com